1. nokhatronews24@gmail.com : ajkarsatkhiradarpan darpan : ajkarsatkhiradarpan darpan
  2. install@wpdevelop.org : sk ferdous :
সাতক্ষীরার দন্ত চিকিৎসায় হিসাবে গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা রাখছেন ডাঃ আবুল কালাম বাবলা - আজকের সাতক্ষীরা দর্পণ
বুধবার, ১৯ জুন ২০২৪, ০৭:১৫ পূর্বাহ্ন
৫ই আষাঢ়, ১৪৩১ বঙ্গাব্দ
সর্বশেষ খবর :
📰ঈদের ছুটিতে সাতক্ষীরা মেহেদীবাগে দুর্ধর্ষ চুরি📰পবিত্র ঈদুল আযহা‘র শুভেচ্ছা জানিয়েছেন জেলা সাংবাদিক এসোসিয়েশন সাতক্ষীরা এর নেতৃবৃন্দ📰পবিত্র ঈদুল আযহা‘র শুভেচ্ছা জানিয়েছেন দৈনিক আজকের সাতক্ষীরা দর্পণের পরিবার📰পবিত্র ঈদুল আযহা‘র শুভেচ্ছা জানিয়েছেন তুফান ডেন্টাল ক্লিনিক সাতক্ষীরা এর পরিচালক ডা: আবুল কালাম বাবলা📰পবিত্র ঈদুল আযহা‘র শুভেচ্ছা জানিয়েছেন “দৈনিক আজকের সাতক্ষীরা দর্পণ” এর সম্পাদক ও প্রকাশক তুহিন হোসেন📰সাংবাদিক মুনসুরকে লাঞ্ছিতকারী! সাতক্ষীরা পৌরসভার সেই বিতর্কিত সিইও নাজিম উদ্দিনকে ভোলায় বদলী📰তালার জাতপুর ইউপি চেয়ারম্যান প্রার্থী সাংবাদিক আকরামুল ইসলামের মতবিনিময়📰সাতক্ষীরায় ২৪১ জন পেল ১৭ লাখ টাকার অনুদানের চেক📰ঘোড়ার গাড়িতে বাড়ি পৌঁছে দেয়া হলো অবসরপ্রাপ্ত প্রধান শিক্ষককে📰সাতক্ষীরায় দুঃস্থ-প্রতিবন্ধী শিশুদের মাঝে ঈদ সহায়তা সামগ্রী বিতরণ

সাতক্ষীরার দন্ত চিকিৎসায় হিসাবে গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা রাখছেন ডাঃ আবুল কালাম বাবলা

প্রতিবেদকের নাম :
  • হালনাগাদের সময় : রবিবার, ১৮ জুলাই, ২০২১
  • ৬৪ সংবাদটি পড়া হয়েছে

নিজস্ব প্রতিনিধি: সাতক্ষীরার ঐতিহ্যবাহী তুফান কোম্পানির এক অঙ্গসংগঠন তুফান ডেন্টাল ক্লিনিক। জন্ম ১৯৩৫ সালে। প্রতিষ্ঠানটির প্রতিষ্ঠাতা ডাঃ শেখ মোসলেম। দেশ বিভাগের পর তিনি ভারত থেকে তৎকালীন পূর্বপাকিস্তান বর্তমান বাংলাদেশে চলে আসেন। বাংলাদেশে এসে তিনি সাতক্ষীরার প্রত্যান্ত এলাকার মানুষের বিনামূল্যে দাঁতের চিকিৎসা সেবা দেন। ভ্রাম্যমান চিকিৎসক হিসেবে গরীব ও অসহায় মানুষের সেবা দিতে থাকেন। মানুষ ডাঃ শেখ মোসলেম-এর চিকিৎসায় দাঁতের বিভিন্ন ব্যাধি থেকে পরিত্রাণ পেতে শুরু করেন। এভাবে তিনি সাতক্ষীরার মানুষের কাছে খুব প্রিয় মুখ হয়ে ওঠেন। তখন তিনি সাতক্ষীরা তুফান ডেন্টাল ক্লিনিক হিসাবে একটি ক্লিনিক চালু করেন। প্রবীণ দাঁতের চিকিৎসক ডাঃ শেখ মোসলেম-এর মৃতুর পর তার পুত্র ডাঃ আবুল কালাম বাবলা তুফান ডেন্টাল ক্লিনিকের হাল ধরেন।
ডাঃ আবুল কালাম বাবলা ১৯৫৮ সালের ২ ফেব্রুয়ারি বাংলাদেশের সাতক্ষীরায় জন্মগ্রহণ করেন। তুফান কোম্পানি লিমিটেডের মূল প্রতিষ্ঠাতা হিসাবে ডাঃ আবুল কালাম বাবলা এই প্রতিষ্ঠানের চেয়ারম্যান। সাম্প্রতিক বছরগুলোতে তিনি ব্যবসায়ের মধ্যে পুরো সময় কাজে লাগিয়েছেন। তার পরিবর্তিতে সাতক্ষীরায় দাতব্য এবং সামাজিক কাজে মনোনিবেশ করেছেন।
২২ বছর বয়েসে আবুল কালাম বাবলা স্নাতকোত্তর ডিগ্রি অর্জন করেন। তিনি ডেন্টাল ক্লিনিকের মাধ্যমে সরাসরি আরও বহু লোকের সেবা করার সুযোগ দেখেছিলেন। এখানেই তিনি তার কেরিয়ার তৈরির পাশাপাশি চারপাশের দরিদ্র মানুষকে সাহায্য করতে এগিয়ে আসেন।
দাঁতের সুচিকিৎসার জন্য সাতক্ষীরা বাসীর কাছে তুফান কোম্পানি একনামে পরিচিত। শুধু তাই নয় সেই পরিচয়ে স্থানটির নাম হয় তুফান কোম্পানির মোড়, যা সর্বসাধারণ এক নামে চেনে। ডাঃ শেখ মোসলেম সাতক্ষীরাতে ১৯৫০ সালে হাঁটি হাঁটি পা পা করে গড়ে তোলেন এই প্রতিষ্ঠানটি। দেশসেবা সহ শ্রমিকদের কল্যাণে রয়েছে এর গুরুত্বপূর্ণ অবদান।
ডাঃ শেখ মোসলেম ১৯৯০ সালে মৃত্যুবরণ করেন। মৃত্যুর পর প্রতিষ্ঠানের হাল ধরেন তারই যোগ্য পুত্র ডাঃ আবুল কালাম বাবলা। বর্তমানে চেয়ারম্যান হিসাবে প্রতিষ্ঠানের দ্বায়িত্ব পালন করলেও তিনি চেম্বারে নিয়োমিত রোগী দেখেন। বহুল প্রচারিত তুফান ডেন্টাল ক্লিনিকে প্রতিদিন সকাল ৯টা থেকে রাত ৯টা পর্যন্ত রোগী দেখা হয়। এই ক্লিনিক দন্ত বিষয়ক বিডিএস সনদ প্রাপ্ত ৪ জন ডাক্তার সহ অভিজ্ঞ ৭ জন ডাক্তার দ্বারা পরিচালিত। ডাঃ আবুল কালাম বাবলার কন্যা সামিমা সুলতানা তন্বী বিডিএস সহ দন্ত বিষয়ে জাপান থেকে পিএইচডি ডিগ্রী লাভ করেন। তার পুত্র তানজিন কামাল তমাল কোম্পানীর ব্যবস্থাপনা পরিচালক হিসেবে দায়িত্ব পালন করছেন এবং ছোট কন্যা সাদিয়া সুলতানা বেসরকারি বিশ^ বিদ্যালয়ে আইন বিষয়ে পড়াশুনা করেন। ডাঃ আবুল কালাম বাবলা দাঁতের ডাক্তার হিসেবে এতটাই পরিচিতি লাভ করেছেন যে তার হাতের স্পর্শে আল্লাহর রহমতে রোগী পুরোপুরি সুস্থ হয়ে ওঠেন।
শুধু তাই নয় সাতক্ষীরার মানুষের দাঁতের চিকিৎসা সহ যশোর, খুলনা, বাগেরহাট, বরিশাল, কুষ্টিয়াসহ ঢাকা থেকেও বহু রোগী এখানে চিকিৎসা নিতে আসে। তিনি সাতক্ষীরায় গরিবের বন্ধু ও বিশিষ্ট সমাজ সেবক হিসাবে গণ-মানুষের কাছে খুবই পরিচিত। তার ক্লিনিকে প্রতিবন্ধি সহ ২৮ জন কর্মচারি চাকুরি করেন।
ডাক্তার আবুল কালাম বাবলা নিরলসভাবে ধনী-গরিব নির্বিশেষে সকল মানুষকে সেবা দিয়ে যাচ্ছেন। হতাশার অতল গহ্বরে নিমজ্জিত রোগগ্রস্ত মানুষগুলোর জীবনে নতুন আলোর সন্ধান এনে দিচ্ছেন। অর্থ সংকটে জর্জরিত মানুষগুলো তার আন্তরিক প্রচেষ্টায় সুস্থ স্বাভাবিক জীবন ফিরে পাচ্ছে। এতে বহু পরিবার অন্ধকারের অমানিশা কেটে গেছে। তারা নতুন করে সংসার আলোকিত করার স্বপ্ন বাস্তবায়নে এগিয়ে যাচ্ছে। ডাক্তার আবুল কালাম বাবলা খুবই প্রানবন্তভাবে আলাপচারিতায় ধনী গরীব সাধারণ রোগীদের নতুন করে বাঁচার প্রেরণা দিয়ে চিকিৎসা সেবা প্রদান করেন। সরবরাহ আছে এমন ওষুধ নির্বাচনের ক্ষেত্রে রোগীদের সামর্থ্যে দিকে লক্ষ্য রেখে খুবই ভালো কোম্পানির কম দামের ওষুধ লেখেন। তিনি ওষুধ কোম্পানীর প্রতিনিধিদের দেওয়া স্যাম্পল ওষুধ গরীবদের মধ্যে

আপনার সামাজিক মিডিয়ায় এই পোস্ট শেয়ার করুন...

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

এই বিভাগের আরো খবর :

সম্পাদক মণ্ডলীর সভাপতি:

এম এ কাশেম ( এম এ- ক্রিমিনোলজি).....01748159372

alternatetext

সম্পাদক ও প্রকাশক:

মো: তুহিন হোসেন (বি.এ অনার্স,এম.এ)...01729416527

alternatetext

বার্তা সম্পাদক: দৈনিক আজকের সাতক্ষীরা

সিনিয়র নির্বাহী সম্পাদক :

মো: মিজানুর রহমান ... 01714904807

© All rights reserved © 2020-2023
প্রযুক্তি সহায়তায়: csoftbd