1. nokhatronews24@gmail.com : ajkarsatkhiradarpan darpan : ajkarsatkhiradarpan darpan
  2. install@wpdevelop.org : sk ferdous :
সাতক্ষীরা জেলায় শতাধিক শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান এখন পানিতে প্লাবিত - আজকের সাতক্ষীরা দর্পণ
সোমবার, ২৬ ফেব্রুয়ারী ২০২৪, ০৩:১৭ পূর্বাহ্ন
১৩ই ফাল্গুন, ১৪৩০ বঙ্গাব্দ
সর্বশেষ খবর :
📰কানাডায় কনসুলেট জেনারেল হলেন দেবহাটার ফারুক হোসেন📰মহাপরিচালকের ব্যাজে ভূষিত হলেন দেবহাটার বীরু📰জেলা সাংবাদিক এসোসিয়েন সাতক্ষীরা’র উদ্যোগে জাকজমকপূর্ণ বনভোজন অনুষ্ঠিত📰সেঁজুতিকে ফুলের শুভেচ্ছা জানিয়েছেন সদর উপজেলার বিভিন্ন ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যানগণ📰দেবহাটায় ওয়ারেন্টভুক্ত দুই আসামি গ্রেপ্তার📰ভাষা সৈনিক লুৎফর সরদারের স্মৃতিতে শ্রদ্ধা নিবেদন📰দেবহাটায় লাগসই প্রযুক্তি শীর্ষক সেমিনার ও প্রদর্শনী📰দেবহাটায় দরিদ্র জনগোষ্ঠীর মাঝে গরু বিতরণ📰পাইকগাছা সুবিধা বনঞ্চিত শিশুেদের মাঝে শিক্ষা উপকরণ বিতরণ করেন মেয়র সেলিম জাহাঙ্গীর📰গণ টেলিভিশন অনুমোদন পাওয়ায় প্রতিষ্ঠানটির (সিইও) আনিসকে জেলা সাংবাদিক এ্যাসোসিয়েনের পক্ষ থেকে অভিনন্দন

সাতক্ষীরা জেলায় শতাধিক শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান এখন পানিতে প্লাবিত

প্রতিবেদকের নাম :
  • হালনাগাদের সময় : বৃহস্পতিবার, ২৩ সেপ্টেম্বর, ২০২১
  • ৭৪ সংবাদটি পড়া হয়েছে

নিজস্ব প্রতিনিধিঃ সাতক্ষীরায় শতাধিক শিক্ষাপ্রতিষ্ঠানে এখন পানি থইথই করছে। গত রবিবার ও সোমবার দুই দিনের টানা বৃষ্টিতে সাতক্ষীরার শতাধিক শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান প্লাবিত হয়েছে। গত তিন দিনেও নিম্নাঞ্চল ও বিভিন্ন শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান থেকে পানি নিষ্কাশন না হওয়ায় এখনো জেলার সাত উপজেলার প্লাবিত স্কুল, কলেজ ও মাদ্রাসাসহ বিভিন্ন শিক্ষা প্রতিষ্ঠানের আঙিনায় হাঁটু থেকে কোমর পানি রয়েছে। ফলে শ্রেণি কক্ষে পাঠদান নিয়ে বিপাকে পড়েছে শিক্ষকরা।
জেলা সদরের ভোমরা রাশেদা বেগম মাধ্যমিক বিদ্যালয়ের মাঠ ছাপিয়ে পানি উঠেছে শ্রেণিকক্ষে। বিদ্যালয়টির নিচতলা সম্পূর্ণ পানিতে নিমজ্জিত। মাঠের কোমর পানি থাকায় বৃহস্পতিবার শ্রেণিকক্ষে যেতে পারেনি শিক্ষক ও শিক্ষার্থীরা। তাই অন্যত্র ক্লাস করানোর কথা ভাবছে শিক্ষা অফিস। কিন্তু নিকটস্থ কোনো ভবন না থাকায় সেটিও আপাতত সম্ভব হয়নি।
জেলা মাধ্যমিক শিক্ষা অফিস বলছে, স্কুল ও কলেজের আঙিনা থেকে পানি নেমে না গেলে জেলার প্রায় শতাধিক শিক্ষা প্রতিষ্ঠানে পাঠদান করা সম্ভব হবে না। করোনা মহামারির কারণে দীর্ঘ দেড় বছর পর শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান খুললে শিক্ষার্থীদের মধ্যে ব্যাপক উৎসাহ-উদ্দীপনা লক্ষ করা যায়। স্কুল খোলার আনন্দে শিক্ষার্থীরা নতুন করে প্রস্তুতি নেয়। কিন্তু সেই আনন্দে সাতক্ষীরায় এবার ‘ছাঁই’ দিয়েছে আশ্বিনের বৃষ্টি।
সাতক্ষীরা সদরের মাছখোলা হাইস্কুল, মাছখোলা সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয় পানিতে ডুবে আছে কয়েক মাস।
এদিকে, জেলা সদরের বড়দল প্রাইমারি স্কুলের অবস্থাও একই। পানি নিষ্কাশন না হওয়ায় শিক্ষার্থীরা রয়েছে চরম ঝুঁকিতে। কালিগঞ্জ উপজেলার নলতা মাধ্যমিক বিদ্যালয়, নলতা মোবারকনগর বাজার ও তৎসংলগ্ন এলাকা পানিতে ডুবে গেছে। এছাড়া কেবি আহসানিয়া জুনিয়র স্কুল, নলতা শরীফের বিভিন্ন প্রতিষ্ঠান, হাট-বাজার ও রাস্তাঘাট রয়েছে পানিতে ডুবে। পানি নিষ্কাশনের পথ দখল করে মাছের ঘের করার কারণে এ অবস্থার সৃষ্টি হয়েছে। এতে করে পানিতে নিমজ্জিত শিক্ষা প্রতিষ্ঠানগুলোর কোনো শ্রেণি কার্যক্রম পরিচালনা করা সম্ভব হচ্ছে না।
শিক্ষক হাবিবুর রহমান বলেন, মঙ্গলবার ভ্যানে চড়ে শিক্ষক-শিক্ষার্থীরা পানি পার হয়ে স্কুলের বারান্দায় পৌঁছায়। পানি পার হতে না পেরে অনেকেই বাড়ি ফিরে যায়। কালিগঞ্জ উপজেলার ভদ্রখালি প্রাইমারি স্কুলের মাঠেও এখন হাঁটু পানি।
আশাশুনির প্রতাপনগর ফাজিল মাদ্রাসা, প্রতাপনগর ইউনাইটেড একাডেমি ও কল্যাণপুর মাধ্যমিক বিদ্যালয়, কুড়িকাহুনিয়া সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়, কুড়িকাহুনিয়া মহিলা মাদ্রাসা, প্রতাপনগর মহিলা মাদ্রাসা, কল্যাণপুর সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়, প্রতাপনগর সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়সহ কয়েকটি প্রতিষ্ঠান কোমর পানিতে ডুবে আছে।
সাতক্ষীরা জেলা মাধ্যমিক শিক্ষা অফিসার এসএম আব্দুল্লাহ আল মামুন জানান, জেলার শতাধিক শিক্ষাপ্রতিষ্ঠানে এক দিনের ভারি বৃষ্টিতে পানি উঠে গেছে। পানিতে নিমজ্জিত শিক্ষা প্রতিষ্ঠান থেকে পানি নেমে না যাওয়ায় গত দুই দিন পাঠদান করা সম্ভব হয়নি। জেলার শ্যামনগর, কালিগঞ্জ, আশাশুনি, দেবহাটা, তালা ও কলারোয়া উপজেলার নিম্নাঞ্চলের বিভিন্ন শিক্ষাপ্রতিষ্ঠানে খোঁজ নেওয়া হয়েছে। জলাবদ্ধতার কারণে শিক্ষাপ্রতিষ্ঠানে ক্লাস করানো সম্ভব হয়নি। বিকল্প ব্যবস্থায় ক্লাস করার ব্যাপারে চিন্তাভাবনা করা হচ্ছে। শুধু হাইস্কুল নয়, মাদ্রাসা ও প্রাইমারি স্কুলও জলাবদ্ধতার শিকার হয়েছে। সেখানেও শিক্ষা ব্যবস্থা ভেঙে পড়েছে।

আপনার সামাজিক মিডিয়ায় এই পোস্ট শেয়ার করুন...

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

এই বিভাগের আরো খবর :

সম্পাদক মণ্ডলীর সভাপতি:

এম এ কাশেম ( এম এ- ক্রিমিনোলজি).....01748159372

alternatetext

সম্পাদক ও প্রকাশক:

মো: তুহিন হোসেন (বি.এ অনার্স,এম.এ)...01729416527

alternatetext

বার্তা সম্পাদক: দৈনিক আজকের সাতক্ষীরা

সিনিয়র নির্বাহী সম্পাদক :

মো: মিজানুর রহমান ... 01714904807

নিবার্হী সম্পাদক :

এস.এম আবু রায়হান (বি.বি.এ)...01735045426

© All rights reserved © 2020-2023
প্রযুক্তি সহায়তায়: csoftbd