1. nokhatronews24@gmail.com : ajkarsatkhiradarpan darpan : ajkarsatkhiradarpan darpan
  2. install@wpdevelop.org : sk ferdous :
তালায় ভাঙ্গা ঘরে কাদামাটির সঙ্গে বসবাস করছে অনিতা যেনো দেখার কেউ নাই - আজকের সাতক্ষীরা দর্পণ
বুধবার, ২৯ মে ২০২৪, ০৩:৫২ অপরাহ্ন
১৫ই জ্যৈষ্ঠ, ১৪৩১ বঙ্গাব্দ
সর্বশেষ খবর :
📰দুর্নীতির অভিযোগে সাতক্ষীরা সদর উপজেলা প্রাথমিক শিক্ষা অফিসার আবদুল গনি স্ট্যান্ড রিলিজ📰এবারও ঘূর্ণিঝড়ের তান্ডব থেকে সাতক্ষীরাকে বাঁচালো সুন্দরবন📰রেমাল আমাগো পথে বসিয়ে দেছে📰ঘূর্ণিঝড় রেমালের আঘাতে সাতক্ষীরায় ১৪৬৮ বাড়িঘর বিধ্বস্ত📰দেবহাটায় ৮টি পরোয়ানাভুক্ত আসামী গ্রেপ্তার📰চাঞ্চল্যকর ধর্ষণ মামলার যাবজ্জীবন সাজাপ্রাপ্ত আসামী কলারোয়ার রিপন গ্রেপ্তার📰ঘূর্ণিঝড় রিমালের পর আসছে পাকিস্তানের আসনা📰বাঁধ উপচে লোকালয়ে পানি প্রবেশের আশঙ্কা📰রেমাল আতঙ্কে সাতক্ষীরার উপকূলের মানুষঃ ঝূঁকিপূর্ণ বেড়িবাঁধ নিয়ে শঙ্কা📰পাইকগাছায় উপজেলা পরিষদ নির্বাচনে চুড়ান্ত প্রতিদ্বন্দ্বী প্রার্থীদের সাথে মতবিনিময় সভা

তালায় ভাঙ্গা ঘরে কাদামাটির সঙ্গে বসবাস করছে অনিতা যেনো দেখার কেউ নাই

প্রতিবেদকের নাম :
  • হালনাগাদের সময় : বুধবার, ১৮ আগস্ট, ২০২১
  • ২৬ সংবাদটি পড়া হয়েছে

তালা প্রতিনিধি: ঘূর্ণিঝড় আম্ফানে ভেঙে গিয়েছিল স্বামীর রেখে যাওয়া কাঁচা ঘরটি। সেই ঘরটি আজও মেরামত করতে পারেননি অনিতা দেবনাথ। ভাঙা ঘরের ওপর একচালা টিন দিয়েই এক বছর ধরে বসবাস করছেন। কোনো মতো খেয়ে না খেয়ে দিনাতিপাত করলেও ঘর মেরামতে এগিয়ে আসেননি কেউ।
ঘরের ছ্াউনি নেই,বারান্দায় টিনের ছাউনি ,পলিথিনের বেড়া, ভাঙাচোরা বেড়ার বারান্দায় বিধবা অনিতার সংসার। শোবার ঘরের দেয়াল নেই। কাদামাটির ঘরে সাপ, ব্যাঙ আর কেঁচোর সঙ্গে নিত্য যুদ্ধ। কাদামাটির ঘরটি দেখলে চোখে পানি চলে আসে, এমন পরিবেশে কোন মানুষ বসবাস করতে পারে? মুজিব শতবর্ষ উপলক্ষে ভূমিহীন ও গৃহহীন পরিবারকে পুর্নবাসনে জাতির জনক বঙ্গবন্ধু কন্যা মানবতার মা শেখ হাসিনা জমি ও ঘর উপহার দিলেও অনিতার কপালে জোটেনি সরকারি ঘর। এই কাদামাটির ঘরের বারান্দায় কোন রকমে বসবাস করা অনিতা উপজেলা নির্বাহী অফিসারের মাধ্যমে প্রধানমন্ত্রীর কাছে প্রাণের আকুতি মাথা গোঁজার ঠাঁই চায়।
সাতক্ষীরা তালা উপজেলার সদর ইউনিয়নের জেয়ালা নলতা গ্রামে মৃত সুকুমার দেবনাথ ( মনু) স্ত্রী অনিতা দেবনাথ(৫০)।এক ছেলে ও এক মেয়ে নিয়ে অভাব-অনাটনের মধ্য দিয়ে সংসার চলতো তাদের। মেয়েকে বিয়ে দিয়েছেন। অনিতার স্বামী মারা গেছে চার বছর আগে। স্বামীর মৃত্যুর পর ছেলেকে নিয়ে সংসার চালাতে হিমশিম খেতে হচ্ছে। অনিতার পাশের বাড়ির শিক্ষক মাসুদ পারভেজ জানান অনেকদিন ধরে অনিতার ঘরের অবস্থা এরকম দেখলে চোখে পানি চলে আসে সবাই আশ্বাস দেয় কিন্তু অনিতা কপালে অনুদান দুটি নাই।
অর্ধাহারে, অনাহারে বাড়ীর বারান্দায় প্রতিবেশীদের লাঞ্চনা গঞ্জনা শুনে দিন রাত অতিবাহিত করেছে।সামান্য বৃষ্টি হলেই ঘর পানিতে থই থই করে, সেই পানি চলে আসে বারান্দায়।তখন সেখানে বসবাস করা দুরহ হয়ে পড়ে।
অনিতার চোখে নেই রঙ্গিন স্বপ্ন। চাই একটু নির্ভরতা ও মাথা গোঁজার ঠাঁই। জরাজীর্ণ ছাপড়া ঘরে মানবেতর জীবনযাপন কাটাছে । স্বামীর হাতে তৈরি করা ঘরটি আম্ফান ঝড়ে লন্ড ভন্ড করে দিয়ে গেছে। সেই থেকে কাদামাটির মধ্যে বসবাস করছে সে। তার কাছে ঘর মেরামত করার মতো অর্থ নেই । এমনকি সরকারি কোন অনুদানও পান না তিনি। দু’বেলা দু মুঠো খাবারের সন্ধান করতে গিয়ে ঘর মেরামত করার চিন্তা ভুলেই গেছে । ছেলেটি এখনো অনেক ছোট,তাই ঠিকমত আয় রোজগার করতে পারেনা
অনিতা জানান, লোক মারফত জানতে পেরেছি, মুজিব শতবর্ষ উপলক্ষে ভূমিহীন ও গৃহহীন পরিবারকে পুর্নবাসনে জাতির জনক বঙ্গবন্ধু কন্যা মানবতার মা শেখ হাসিনা জমি ও ঘর উপহার দিচ্ছেন। ইউএনও স্যারের মাধ্যমে বহু মানুষ ইতিমধ্যে জমি ও ঘর পেয়েছে, তারা সেখানে বসবাস করছে, আপন ঠিকানা পেয়েছে। অনেকে জমি ও ঘর পেলেও সেখানে বসবাস করে না পতিত অবস্থায় আছে। আর আমি ঘরের অভাবে মানবেতর জীবণ যাপন করছি। আমি অনেকের কাছে বলেছি কিন্তু কেউ আমার দুঃখ কষ্ট বোঝেনি। আমি একজন অসহায় গৃহহীন মানুষ, তাই ইউএনও স্যারের মাধ্যমে প্রধানমন্ত্রী মানবতার মা শেখ হাসিনার কাছে মাথা গুজার ঠাঁই চাই। তা না হলে খোলা আকাশের নীচে থাকা ছাড়া উপায় থাকবে না।

আপনার সামাজিক মিডিয়ায় এই পোস্ট শেয়ার করুন...

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

এই বিভাগের আরো খবর :

সম্পাদক মণ্ডলীর সভাপতি:

এম এ কাশেম ( এম এ- ক্রিমিনোলজি).....01748159372

alternatetext

সম্পাদক ও প্রকাশক:

মো: তুহিন হোসেন (বি.এ অনার্স,এম.এ)...01729416527

alternatetext

বার্তা সম্পাদক: দৈনিক আজকের সাতক্ষীরা

সিনিয়র নির্বাহী সম্পাদক :

মো: মিজানুর রহমান ... 01714904807

নিবার্হী সম্পাদক :

এস.এম আবু রায়হান (বি.বি.এ)...01735045426

© All rights reserved © 2020-2023
প্রযুক্তি সহায়তায়: csoftbd